রবিবার, ২৮ মে ২০২৩, সন্ধ্যা ৭:১৮
রবিবার, ২৮ মে ২০২৩,সন্ধ্যা ৭:১৮

খালে পড়ে মারা গেল ১৯ মাসের আইমান

মহিদুল ইসলাম, শরণখোলা (বাগেরহাট)

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

৫:৪৩ pm

বাগেরহাটের শরণখোলায় খালে পড়ে মারা গেছে ১৯ মাস বয়সী আইমান খাঁন নামে এক শিশু। শিশুটিকে খাল থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষনা করেন চিকিসৎক। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুর দুইটার দিকে উপজেলার পূর্ব খোন্তাকাটা গ্রামে। নিহত আইমান ওই গ্রামের হাফেজ মাহামুদুল হাছানের ছেলে।

শিশুটির চাচা মো. শাহিন খান জানান, তাদের বাড়িতে পারিবারিক অনুষ্ঠান চলছিল। একারণে বাড়ি ভর্তি মেহমান। সাবাই ব্যস্ত ছিলেন বিভিন্ন কাজে। শিশুটি কখন যে বাড়ির পেছনের খালে গিয়ে পড়েছে তা কেউ টের পায়নি। দুপুর দেড়টার দিকে আইমানকে কোথাও না দেখে খোঁজাখুজি শুরু হয়। একপর্যায়ে খালে তল্লাশি করে তাকে পাওয়া যায়। এর পর দ্রত হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রবিউল ইসলাম জানান, হাসপাতালে আনার আগেই শিশুটি মারা গেছে।

 

Related Posts

খালে পড়ে মারা গেল ১৯ মাসের আইমান

মহিদুল ইসলাম, শরণখোলা (বাগেরহাট)

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩,

৫:৪৩ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

বাগেরহাটের শরণখোলায় খালে পড়ে মারা গেছে ১৯ মাস বয়সী আইমান খাঁন নামে এক শিশু। শিশুটিকে খাল থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষনা করেন চিকিসৎক। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুর দুইটার দিকে উপজেলার পূর্ব খোন্তাকাটা গ্রামে। নিহত আইমান ওই গ্রামের হাফেজ মাহামুদুল হাছানের ছেলে।

শিশুটির চাচা মো. শাহিন খান জানান, তাদের বাড়িতে পারিবারিক অনুষ্ঠান চলছিল। একারণে বাড়ি ভর্তি মেহমান। সাবাই ব্যস্ত ছিলেন বিভিন্ন কাজে। শিশুটি কখন যে বাড়ির পেছনের খালে গিয়ে পড়েছে তা কেউ টের পায়নি। দুপুর দেড়টার দিকে আইমানকে কোথাও না দেখে খোঁজাখুজি শুরু হয়। একপর্যায়ে খালে তল্লাশি করে তাকে পাওয়া যায়। এর পর দ্রত হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রবিউল ইসলাম জানান, হাসপাতালে আনার আগেই শিশুটি মারা গেছে।

 

Related Posts