সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, রাত ২:৪৪
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪,রাত ২:৪৪

প্রতিবন্ধীদের হৈ-হুল্লোড়ে মাতলো প্রেমচারাবাসী

স্টাফ রিপোর্টার

২০ ডিসেম্বর, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

২:৩৪ pm

কেউ কথা বলতে পারে না, কেউ বলে তোতলিয়ে, কেউবা হাঁটতে পারে না, আসে মা-বাবার কোলে চড়ে, কেউবা আসে হুইল চেয়ারে চেপে। এমন সব অটিজম, বাক, বুদ্ধি, মানসিক ও শারিরিক প্রতিবন্ধী শিশুদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা।

মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে সোমবার (১৯ ডিসেম্বর) যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার বন্দবিলা ইউনিয়নের আরশাদ আছিয়া অটিজম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

দিনভর আনন্দ-উল্লাস ও হৈ-হুল্লোড়ে মেতে ওঠে নানা বয়সী ওই প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা। এতে খুশি অভিভাবক ও স্বজনেরা। এমন আয়োজনকে কেন্দ্র করে এদিন স্থানীয় প্রেমচারা বলফিল্ড মাঠে উৎসবের পরিবেশ সৃষ্টি হয়।

সকাল ৯টার পর একেএকে বিদ্যালয়ের নিজস্ব দুটি গাড়িতে করে দুর-দুরান্তের শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানস্থলে হাজির হয়। বেলা ১০টায় প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন, দৈনিক গ্রামের কাগজ’র নির্বাহী সম্পাদক আসাদ আসাদুজ্জামান ও দৈনিক কল্যাণ’র মফস্বল সম্পাদক এস শামছুদ্দিন জ্যোতি। এর পরপরই বালিশ খেলা, বল নিক্ষেপ, মোরগ লড়াই, বিস্কুট খাওয়া, দৌড় সহ ক্রীড়ার নানা প্রতিযোগিতায় অংশ নেয় বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ওই সব শিক্ষার্থীরা। চলে ঠিক বেলা দেড়টা পর্যন্ত। বিকেলে সাংস্কৃতিক পর্বে নাচ, গান, কবিতা আবৃত্তি অংশ নেওয়া প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা নিজের লুকায়িত সুপ্ত প্রতিভাকে তুলে ধরে।

‘প্রতিবন্ধী মানেই প্রতিভাবন্ধী নয়’ সেটি নিজেকে দিয়েই দেখিয়ে দিলেন বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর এক ছাত্রী। জন্ম থেকেই তার দুই পা বিকল। মঞ্চের কার্পেটের ওপর বসে পা দিয়ে নিজের নাম লিখলেন ‘রেশমা খাতুন’। এর পরপরই দৃষ্টি প্রতিবন্ধী চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী সোনাভান তার সুরেলা কন্ঠে গেয়ে উঠলেন ‘হাইরে আমার মন মাতানো দেশ, হাইরে আমার সোনা ফলা মাটি…’ গানটি। উপস্থিত সবাই অবাক হয়ে শুনলেন। শুধু তাই নয়; গানের তালে প্রথম শ্রেণীর হাবিবা খাতুনের উড়াধুড়া নাচে মুগ্ধতা ছড়ায়।

এর আগে দুপুর দুইটায় প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের প্রতিদিনের মতো চিকিৎসা দেন বিদ্যালয়ের সহকারী থেরাপিস্ট প্রসেনজীত বিশ্বাস।

বিকেলে প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আরশাদ আছিয়া ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক শামীম আকতার। প্রধান অতিথি ছিলেন, যশোর জেলা ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি কমরেড হারুন-অর-রশিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, গ্রামের কাগজ’র সম্পাদক মবিনুল ইসলাম, দৈনিক জনকন্ঠ ও যমুনা টিভির জেলা প্রতিনিধি সাজেদ রহমান বকুল, দৈনিক সমাজের কথা’র বার্তা সম্পাদক ও জাগো নিউজ’র জেলা প্রতিনিধি মিলন রহমান ও প্রেমচারা অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ রবীন্দ্রনাথ মজুমদার।

আরশাদ আছিয়া অটিজম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক রুখশানা শার্মীন। এ সময় ইউপি সদস্য মফিজুর রহমান, গ্রামের কাগজের আলোকচিত্রী নাজমুস সাকিব আকাশ, জাপা নেতা আইয়ুব আলী, সাবেক ইউপি সদস্য আলম মোল্যা ও হালিম বিশ্বাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


Warning: Trying to access array offset on value of type bool in /home/charidik/public_html/wp-content/themes/jnews/class/Module/Block/Block_9_View.php on line 13

Related Posts

প্রতিবন্ধীদের হৈ-হুল্লোড়ে মাতলো প্রেমচারাবাসী

স্টাফ রিপোর্টার

২০ ডিসেম্বর, ২০২২,

২:৩৪ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

কেউ কথা বলতে পারে না, কেউ বলে তোতলিয়ে, কেউবা হাঁটতে পারে না, আসে মা-বাবার কোলে চড়ে, কেউবা আসে হুইল চেয়ারে চেপে। এমন সব অটিজম, বাক, বুদ্ধি, মানসিক ও শারিরিক প্রতিবন্ধী শিশুদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা।

মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে সোমবার (১৯ ডিসেম্বর) যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার বন্দবিলা ইউনিয়নের আরশাদ আছিয়া অটিজম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

দিনভর আনন্দ-উল্লাস ও হৈ-হুল্লোড়ে মেতে ওঠে নানা বয়সী ওই প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা। এতে খুশি অভিভাবক ও স্বজনেরা। এমন আয়োজনকে কেন্দ্র করে এদিন স্থানীয় প্রেমচারা বলফিল্ড মাঠে উৎসবের পরিবেশ সৃষ্টি হয়।

সকাল ৯টার পর একেএকে বিদ্যালয়ের নিজস্ব দুটি গাড়িতে করে দুর-দুরান্তের শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানস্থলে হাজির হয়। বেলা ১০টায় প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন, দৈনিক গ্রামের কাগজ’র নির্বাহী সম্পাদক আসাদ আসাদুজ্জামান ও দৈনিক কল্যাণ’র মফস্বল সম্পাদক এস শামছুদ্দিন জ্যোতি। এর পরপরই বালিশ খেলা, বল নিক্ষেপ, মোরগ লড়াই, বিস্কুট খাওয়া, দৌড় সহ ক্রীড়ার নানা প্রতিযোগিতায় অংশ নেয় বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ওই সব শিক্ষার্থীরা। চলে ঠিক বেলা দেড়টা পর্যন্ত। বিকেলে সাংস্কৃতিক পর্বে নাচ, গান, কবিতা আবৃত্তি অংশ নেওয়া প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা নিজের লুকায়িত সুপ্ত প্রতিভাকে তুলে ধরে।

‘প্রতিবন্ধী মানেই প্রতিভাবন্ধী নয়’ সেটি নিজেকে দিয়েই দেখিয়ে দিলেন বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর এক ছাত্রী। জন্ম থেকেই তার দুই পা বিকল। মঞ্চের কার্পেটের ওপর বসে পা দিয়ে নিজের নাম লিখলেন ‘রেশমা খাতুন’। এর পরপরই দৃষ্টি প্রতিবন্ধী চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী সোনাভান তার সুরেলা কন্ঠে গেয়ে উঠলেন ‘হাইরে আমার মন মাতানো দেশ, হাইরে আমার সোনা ফলা মাটি…’ গানটি। উপস্থিত সবাই অবাক হয়ে শুনলেন। শুধু তাই নয়; গানের তালে প্রথম শ্রেণীর হাবিবা খাতুনের উড়াধুড়া নাচে মুগ্ধতা ছড়ায়।

এর আগে দুপুর দুইটায় প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের প্রতিদিনের মতো চিকিৎসা দেন বিদ্যালয়ের সহকারী থেরাপিস্ট প্রসেনজীত বিশ্বাস।

বিকেলে প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আরশাদ আছিয়া ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক শামীম আকতার। প্রধান অতিথি ছিলেন, যশোর জেলা ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি কমরেড হারুন-অর-রশিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, গ্রামের কাগজ’র সম্পাদক মবিনুল ইসলাম, দৈনিক জনকন্ঠ ও যমুনা টিভির জেলা প্রতিনিধি সাজেদ রহমান বকুল, দৈনিক সমাজের কথা’র বার্তা সম্পাদক ও জাগো নিউজ’র জেলা প্রতিনিধি মিলন রহমান ও প্রেমচারা অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ রবীন্দ্রনাথ মজুমদার।

আরশাদ আছিয়া অটিজম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক রুখশানা শার্মীন। এ সময় ইউপি সদস্য মফিজুর রহমান, গ্রামের কাগজের আলোকচিত্রী নাজমুস সাকিব আকাশ, জাপা নেতা আইয়ুব আলী, সাবেক ইউপি সদস্য আলম মোল্যা ও হালিম বিশ্বাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


Warning: Trying to access array offset on value of type bool in /home/charidik/public_html/wp-content/themes/jnews/class/Module/Block/Block_9_View.php on line 13

Related Posts