শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ভোর ৫:৫৮
শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩,ভোর ৫:৫৮

এমপক্সে আর্জেন্টিনায় প্রথম মৃত্যু

আন্তজার্তিক ডেস্ক

৩০ নভেম্বর, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

৯:২২ pm

আর্জেন্টিনায় প্রথমবারের মতো এমপক্স রোগীর মৃত্যুর ঘটনা নথিভুক্ত করা হয়েছে। কয়েক দিন ধরে তিনি ভাইরাসটিতে ভুগছিলেন। দেশটির রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা গেছেন ওই রোগী। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) আর্জেন্টিনার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, ৪৪ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি বুয়েন্স আয়ার্সপ্রদেশের বাসিন্দা। এর আগে তার এইচআইভি শনাক্ত হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময় থেকে তিনি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। তার মৃত্যু রেজিস্ট্রেশন করা হয় ২২ নভেম্বর। তাছাড়া হার্পিস এবং নিউমোনিয়াসহ বেশ কিছু জটিল রোগে ভুগছিলেন তিনি।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, আর্জেন্টিনায় এখন পর্যন্ত ৮৯৫ জন এমপক্স রোগী শনাক্ত হয়েছে। অধিকাংশ রোগীই বুয়েন্স আয়ার্স সিটির বাসিন্দা।

অন্যদিকে আফ্রিকার পর ইউরোপ ও আমেরিকাতেও এই বছর ছড়িয়ে পড়েছে মাঙ্কিপক্স। এ নিয়ে সতর্কবার্তা দেয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এবার সংস্থাটি মাঙ্কিপক্স ভাইরাসের নতুন নাম ঘোষণা করেছে। এই ভাইরাসটির নতুন নাম দেওয়া হয়েছে এমপক্স।

মাঙ্কিপক্স নামটি বর্ণবাদী বলে অভিযোগ তুলে দীর্ঘদিন ধরেই নাম পরিবর্তনের দাবি করা হচ্ছিল। এই নামটি আফ্রিকার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয় বলেও দাবি করা হয়।

ডব্লিউএইচও জানিয়েছে, এই রোগ এখন এমপক্স নামে পরিচিত হবে। তবে আপাতত সুবিধার জন্য দুটোই ব্যবহার করা হবে। পর্যায়ক্রমে মাঙ্কিপক্স শব্দটি বাদ দেওয়া হবে। সূত্র : জাগোনিউজ

Related Posts

এমপক্সে আর্জেন্টিনায় প্রথম মৃত্যু

আন্তজার্তিক ডেস্ক

৩০ নভেম্বর, ২০২২,

৯:২২ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

আর্জেন্টিনায় প্রথমবারের মতো এমপক্স রোগীর মৃত্যুর ঘটনা নথিভুক্ত করা হয়েছে। কয়েক দিন ধরে তিনি ভাইরাসটিতে ভুগছিলেন। দেশটির রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা গেছেন ওই রোগী। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) আর্জেন্টিনার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, ৪৪ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি বুয়েন্স আয়ার্সপ্রদেশের বাসিন্দা। এর আগে তার এইচআইভি শনাক্ত হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময় থেকে তিনি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। তার মৃত্যু রেজিস্ট্রেশন করা হয় ২২ নভেম্বর। তাছাড়া হার্পিস এবং নিউমোনিয়াসহ বেশ কিছু জটিল রোগে ভুগছিলেন তিনি।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, আর্জেন্টিনায় এখন পর্যন্ত ৮৯৫ জন এমপক্স রোগী শনাক্ত হয়েছে। অধিকাংশ রোগীই বুয়েন্স আয়ার্স সিটির বাসিন্দা।

অন্যদিকে আফ্রিকার পর ইউরোপ ও আমেরিকাতেও এই বছর ছড়িয়ে পড়েছে মাঙ্কিপক্স। এ নিয়ে সতর্কবার্তা দেয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এবার সংস্থাটি মাঙ্কিপক্স ভাইরাসের নতুন নাম ঘোষণা করেছে। এই ভাইরাসটির নতুন নাম দেওয়া হয়েছে এমপক্স।

মাঙ্কিপক্স নামটি বর্ণবাদী বলে অভিযোগ তুলে দীর্ঘদিন ধরেই নাম পরিবর্তনের দাবি করা হচ্ছিল। এই নামটি আফ্রিকার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয় বলেও দাবি করা হয়।

ডব্লিউএইচও জানিয়েছে, এই রোগ এখন এমপক্স নামে পরিচিত হবে। তবে আপাতত সুবিধার জন্য দুটোই ব্যবহার করা হবে। পর্যায়ক্রমে মাঙ্কিপক্স শব্দটি বাদ দেওয়া হবে। সূত্র : জাগোনিউজ

Related Posts