শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ভোর ৫:২৪
শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩,ভোর ৫:২৪

বাংলাদেশ হাত পেতে নয়, মাথা উচু করে চলবে: প্রধানমন্ত্রী

২৬ নভেম্বর, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

৩:২৪ pm

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিদেশিদের কাছে হাত পেতে নয়, মাথা উঁচু করে চলবে বাংলাদেশ।

শনিবার (২৬ নভেম্বর) সকালে বঙ্গবন্ধু টানেলের প্রথম টিউব উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ দেশে আর দরিদ্র থাকবে না। এখন আর কাউকে খাবারের জন্য হাহাকার করতে হয় না।

তিনি বলেন, করোনা ও ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে বিশ্ব অর্থনীতিতে মন্দা চলছে। বাংলাদেশেও এর থেকে দূরে নয়। তাই আমাদের জমি ও জলাশয়গুলো যেন খালি না থাকে। যাই খালি আছে, সব জায়গা থেকেই উৎপাদন করতে হবে।

সরকারপ্রধান বলেন, আমাদের যা আছে তা নিয়েই চলতে হবে। কারও কাছে হাত পাতবো না। দেশের মানুষের খাবারের কোনো অভাব থাকবে না। সবাই সাশ্রয়ী হলে মন্দা মোকাবেলা করা সম্ভব।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু টানেল চালু হলে দেশের অর্থনৈতিক কার্যক্রম আরও গতিশীল হবে। আমরা যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নতি করেছি। কিছুদিন আগে পদ্মা সেতু উদ্বোধন করেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকে বাংলাদেশকে বিশ্বে উন্নয়নের বিস্ময় হিসেবে গ্রহণ করে। অথচ আগে যারা ক্ষমতায় ছিল, তারা এ দেশের উন্নয়ন চায়নি। যার ফলে দেশটা এগোতে পারেনি।

তিনি আরও বলেন, যারা বাংলাদেশের উন্নয়ন চোখে দেখে না, হয় তাদের চোখ নষ্ট, তারা চাইলে ডাক্তার দেখাতে পারে। আমরা একটা আধুনিক চক্ষু ইনস্টিটিউট করে দিয়েছি। আর চোখ থেকেও অন্ধ হলে তো কিছু করার নেই।

এ সময় বিশ্বের বিভিন্ন দেশে হঠাৎ করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন শেখ হাসিনা।

Related Posts

বাংলাদেশ হাত পেতে নয়, মাথা উচু করে চলবে: প্রধানমন্ত্রী

২৬ নভেম্বর, ২০২২,

৩:২৪ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিদেশিদের কাছে হাত পেতে নয়, মাথা উঁচু করে চলবে বাংলাদেশ।

শনিবার (২৬ নভেম্বর) সকালে বঙ্গবন্ধু টানেলের প্রথম টিউব উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ দেশে আর দরিদ্র থাকবে না। এখন আর কাউকে খাবারের জন্য হাহাকার করতে হয় না।

তিনি বলেন, করোনা ও ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে বিশ্ব অর্থনীতিতে মন্দা চলছে। বাংলাদেশেও এর থেকে দূরে নয়। তাই আমাদের জমি ও জলাশয়গুলো যেন খালি না থাকে। যাই খালি আছে, সব জায়গা থেকেই উৎপাদন করতে হবে।

সরকারপ্রধান বলেন, আমাদের যা আছে তা নিয়েই চলতে হবে। কারও কাছে হাত পাতবো না। দেশের মানুষের খাবারের কোনো অভাব থাকবে না। সবাই সাশ্রয়ী হলে মন্দা মোকাবেলা করা সম্ভব।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু টানেল চালু হলে দেশের অর্থনৈতিক কার্যক্রম আরও গতিশীল হবে। আমরা যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নতি করেছি। কিছুদিন আগে পদ্মা সেতু উদ্বোধন করেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকে বাংলাদেশকে বিশ্বে উন্নয়নের বিস্ময় হিসেবে গ্রহণ করে। অথচ আগে যারা ক্ষমতায় ছিল, তারা এ দেশের উন্নয়ন চায়নি। যার ফলে দেশটা এগোতে পারেনি।

তিনি আরও বলেন, যারা বাংলাদেশের উন্নয়ন চোখে দেখে না, হয় তাদের চোখ নষ্ট, তারা চাইলে ডাক্তার দেখাতে পারে। আমরা একটা আধুনিক চক্ষু ইনস্টিটিউট করে দিয়েছি। আর চোখ থেকেও অন্ধ হলে তো কিছু করার নেই।

এ সময় বিশ্বের বিভিন্ন দেশে হঠাৎ করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন শেখ হাসিনা।

Related Posts