শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২, সন্ধ্যা ৭:১১
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২,সন্ধ্যা ৭:১১

যেখানেই শেখ হাসিনার জনসভা, সেখানেই হেলাল বেপারী

স্টাফ রিপোর্টার

২৪ নভেম্বর, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

১০:০৬ pm

হেলাল বেপারী। বাড়ি খুলনার দৌলতপুর উপজেলার মহেশ্বরপাশায়। পেশায় একজন দিনমজুর তিনি। হেলাল বেপারী ভালোবাসেন বঙ্গবন্ধুকে।ভালোবাসেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে। তাইতো যেখানেই শেখ হাসিনার জনসভা, সেখানেই নিজের বাইসাইকেল চেপে হাজির হন তিনি।

তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) শেখ হাসিনার জনসভায় যোগ দিতে বাইসাইকেল চালিয়ে যশোরে এসেছিলেন হেলাল।সাইকেলের সামনে নৌকা প্রতীক। মুখে জয় বাংলা শ্লোগান ছিলো তার।

জনসভাস্থলে ঢুকতে না পারলেও জনসভার আশপাশে ঘুরে বেড়িয়েছেন তিনি। হেলালকে দেখে উৎসুক জনতা ভিড় জমান। কথা হয় অনেকের সাথে সাথে। প্রচুর লোকসমাগম দেখে খুশি তিনি।

হেলাল বেপারী বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের সময় খুব ছোট ছিলাম। আমার বাবা বঙ্গবন্ধুর ভক্ত ছিলেন। তাকে নিয়ে গল্প করতেন বাবা। সেই থেকে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার প্রতি আমার ভালোবাসা তৈরি হয়। তাই  যেখানেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা হয়, সেখানেই আমি বাইসাইকেল নিয়ে হাজির হই। লোকমুখে শুনে যশোরে এসেছি জনসভায় যোগ দিতে ।’

তিনি আরো বলেন, ‘ফজরের নামাজ পড়ে নিজের বাইসাইকেলটি নিয়ে রওনা হয়েছি।’

Related Posts

যেখানেই শেখ হাসিনার জনসভা, সেখানেই হেলাল বেপারী

স্টাফ রিপোর্টার

২৪ নভেম্বর, ২০২২,

১০:০৬ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

হেলাল বেপারী। বাড়ি খুলনার দৌলতপুর উপজেলার মহেশ্বরপাশায়। পেশায় একজন দিনমজুর তিনি। হেলাল বেপারী ভালোবাসেন বঙ্গবন্ধুকে।ভালোবাসেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে। তাইতো যেখানেই শেখ হাসিনার জনসভা, সেখানেই নিজের বাইসাইকেল চেপে হাজির হন তিনি।

তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) শেখ হাসিনার জনসভায় যোগ দিতে বাইসাইকেল চালিয়ে যশোরে এসেছিলেন হেলাল।সাইকেলের সামনে নৌকা প্রতীক। মুখে জয় বাংলা শ্লোগান ছিলো তার।

জনসভাস্থলে ঢুকতে না পারলেও জনসভার আশপাশে ঘুরে বেড়িয়েছেন তিনি। হেলালকে দেখে উৎসুক জনতা ভিড় জমান। কথা হয় অনেকের সাথে সাথে। প্রচুর লোকসমাগম দেখে খুশি তিনি।

হেলাল বেপারী বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের সময় খুব ছোট ছিলাম। আমার বাবা বঙ্গবন্ধুর ভক্ত ছিলেন। তাকে নিয়ে গল্প করতেন বাবা। সেই থেকে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার প্রতি আমার ভালোবাসা তৈরি হয়। তাই  যেখানেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা হয়, সেখানেই আমি বাইসাইকেল নিয়ে হাজির হই। লোকমুখে শুনে যশোরে এসেছি জনসভায় যোগ দিতে ।’

তিনি আরো বলেন, ‘ফজরের নামাজ পড়ে নিজের বাইসাইকেলটি নিয়ে রওনা হয়েছি।’

Related Posts