মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, বিকাল ৫:১৯
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২,বিকাল ৫:১৯

বলেশ্বর পাড়ে ডিজিটাল মেলায় মানুষের ঢল

মহিদুল ইসলাম, শরণখোলা (বাগেরহাট)

১৪ নভেম্বর, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

১০:১২ pm

বাগেরহাটের শরণখোলায় এবার ব্যতিক্রমী আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা। উপজেলার ঐতিহ্য বলেশ্বর নদের পাড়ে সদ্য নির্মিত বড়ইতলা রিভারভিউ ইকোপার্কে আয়োজন করা হয় এ মেলার। হাজার হাজার শিক্ষার্থী আরো দর্শনার্থীর পদচারণায় উৎসবমুখর আরো প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে এবারের মেলা।

উপজেলার প্রশাসনের আয়োজনে সোমবার (১৪ নভেম্বর) সকাল ৯টায় মেলার উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রায়হান উদ্দিন শান্ত। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নূর-ই আলম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক দলের নেতা ও সাংবাদিকসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

ইউএনও মো. নূর-ই আলম সিদ্দিকী বলেন, ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা এবার একটু ভিন্নভাবে উদযাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মানুষ যাতে মানসিক প্রশান্তি নিয়ে মেলা উপভোগ করতে পারে। সেই চিন্তা থেকে বলেশ্বর নদের বিশাল জলরাসিকে ঘিরে বেড়িবাঁধের পাশে গড়ে তোলা রিভারভিউ ইকোপার্কে এই আয়োজন করা।

তিনি আরো জানান, মেলায় বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তর, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক, এনজিওসহ ২১টি প্রতিষ্ঠান তাদের স্টলে নিজস্ব উদ্ভাবনী পণ্য, প্রযুক্তি ও সেবাসমূহ উপস্থাপন করে। শিক্ষার্থীরা এসব দেখে নতুন কিছু শিখতে পারবে। গতানুগতিক ধারার বাইরে এসে মেলার আয়োজন করায় দর্শনার্থীদের উপস্থিতি অনেকগুণ বেড়েছে।

Related Posts

বলেশ্বর পাড়ে ডিজিটাল মেলায় মানুষের ঢল

মহিদুল ইসলাম, শরণখোলা (বাগেরহাট)

১৪ নভেম্বর, ২০২২,

১০:১২ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

বাগেরহাটের শরণখোলায় এবার ব্যতিক্রমী আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা। উপজেলার ঐতিহ্য বলেশ্বর নদের পাড়ে সদ্য নির্মিত বড়ইতলা রিভারভিউ ইকোপার্কে আয়োজন করা হয় এ মেলার। হাজার হাজার শিক্ষার্থী আরো দর্শনার্থীর পদচারণায় উৎসবমুখর আরো প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে এবারের মেলা।

উপজেলার প্রশাসনের আয়োজনে সোমবার (১৪ নভেম্বর) সকাল ৯টায় মেলার উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রায়হান উদ্দিন শান্ত। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নূর-ই আলম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক দলের নেতা ও সাংবাদিকসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

ইউএনও মো. নূর-ই আলম সিদ্দিকী বলেন, ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা এবার একটু ভিন্নভাবে উদযাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মানুষ যাতে মানসিক প্রশান্তি নিয়ে মেলা উপভোগ করতে পারে। সেই চিন্তা থেকে বলেশ্বর নদের বিশাল জলরাসিকে ঘিরে বেড়িবাঁধের পাশে গড়ে তোলা রিভারভিউ ইকোপার্কে এই আয়োজন করা।

তিনি আরো জানান, মেলায় বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তর, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক, এনজিওসহ ২১টি প্রতিষ্ঠান তাদের স্টলে নিজস্ব উদ্ভাবনী পণ্য, প্রযুক্তি ও সেবাসমূহ উপস্থাপন করে। শিক্ষার্থীরা এসব দেখে নতুন কিছু শিখতে পারবে। গতানুগতিক ধারার বাইরে এসে মেলার আয়োজন করায় দর্শনার্থীদের উপস্থিতি অনেকগুণ বেড়েছে।

Related Posts