রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, সকাল ৭:১১
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২,সকাল ৭:১১

আট বছর পর শনিবার তালতলী উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন

হায়াতুজ্জামান মিরাজ, আমতলী (বরগুনা)

২৮ অক্টোবর, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

৬:২৭ pm

দীর্ঘ আট বছর পর শনিবার (২৯ অক্টোবর) বরগুনার তালতলী আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে নবরূপে সেজেছে তালতলী। উপজেলার সর্বত্র গুরুত্বপূর্ণ স্থানে শোভা পাচ্ছে তোরণ, রঙ-বেরঙের ব্যানার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড। নেতা-কর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে প্রাণচাঞ্চল্য। সম্মেলন সফল করতে উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। ইতোমধ্যেই সকল প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে রয়েছে বলে দলীয় সূত্র নিশ্চিত করেছে। এদিন তালতলী সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে  অনুষ্ঠিত হবে বহু কাঙ্ক্ষিত এ সম্মেলন।

তালতলী উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধন করবেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক (বরিশাল বিভাগের দায়িত্বে) অ্যাডভোকেট মো. আফজাল হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সদস্য গোলাম রব্বানী চিনু। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. জাহাঙ্গীর কবির। সম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রেজবি-উল-কবির জোমাদ্দার এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় থাকবেন তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ছোটবগী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তৌফিকুজ্জামান তনু।

তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে একাধিক দলীয় নেতা-কর্মী জানান, সভাপতি প্রার্থী হিসেবে বর্তমান সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রেজবী -উল- কবির জোমাদ্দার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মনিরুজ্জামান মিন্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক মো. ফলজুল হক জোমাদ্দার, উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও ছোটবগী ইউপি চেয়ারম্যান তৌফিকুজ্জামান তনুর নাম শোনা যাচ্ছে।

এদিকে সাধারণ সম্পাদক পদের জন্যও বেশ কয়েকজনের নাম শোনা যাচ্ছে। তাঁরা হলেন-তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বড়বগী ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর মিয়া আলম মুন্সী, উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সহসভাপতি মো. কামরুল আহসান, সহসভাপতি আবুল কাশেম হাওলাদার ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আলী হাওলাদার।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুজ্জামান তনু বলেন, দীর্ঘদিন ধরে দলকে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করতে কাজ করেছি। কখনো দলীয় সিদ্ধাতের বাহিরে যাইনি। দলের নেতা-কর্মী ও কাউন্সিলররা যদি চায় আমাকে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত করবেন। আর যদি না চায় তাহলে বিগতদিনে যেভাবে দলের জন্য কাজ করেছি ভবিষ্যতেও সেভাবে কাজ করে যাবো।

উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো.,রেজবি-উল-কবির জোমাদ্দার মুঠোফোনে বলেন, তালতলী উপজেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের সকল প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করা হয়েছে। গত আটটি বছর আমি সভাপতির দায়িত্বে থেকে দলকে সুসংগঠিত করতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছি। ফলে গত ৪ মাস আগে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের মধ্যে ৬টি ইউনিয়নে দল মনোনিত প্রার্থীরা বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছে। কাঙ্ক্ষিত এ সম্মেলনে আমি পুনঃরায় সভাপতি প্রার্থী হিসেবে দলের নেতা-কর্মী ও কাউন্সিলরদের সমর্থন চেয়ে যাচ্ছি। আমি আশাবাদি দলের কাউন্সিলররা আমাকে পুনঃরায় সভাপতি  নির্বাচিত করবেন।

Related Posts

আট বছর পর শনিবার তালতলী উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন

হায়াতুজ্জামান মিরাজ, আমতলী (বরগুনা)

২৮ অক্টোবর, ২০২২,

৬:২৭ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

দীর্ঘ আট বছর পর শনিবার (২৯ অক্টোবর) বরগুনার তালতলী আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে নবরূপে সেজেছে তালতলী। উপজেলার সর্বত্র গুরুত্বপূর্ণ স্থানে শোভা পাচ্ছে তোরণ, রঙ-বেরঙের ব্যানার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড। নেতা-কর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে প্রাণচাঞ্চল্য। সম্মেলন সফল করতে উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। ইতোমধ্যেই সকল প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে রয়েছে বলে দলীয় সূত্র নিশ্চিত করেছে। এদিন তালতলী সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে  অনুষ্ঠিত হবে বহু কাঙ্ক্ষিত এ সম্মেলন।

তালতলী উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধন করবেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক (বরিশাল বিভাগের দায়িত্বে) অ্যাডভোকেট মো. আফজাল হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সদস্য গোলাম রব্বানী চিনু। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. জাহাঙ্গীর কবির। সম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রেজবি-উল-কবির জোমাদ্দার এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় থাকবেন তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ছোটবগী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তৌফিকুজ্জামান তনু।

তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে একাধিক দলীয় নেতা-কর্মী জানান, সভাপতি প্রার্থী হিসেবে বর্তমান সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রেজবী -উল- কবির জোমাদ্দার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মনিরুজ্জামান মিন্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক মো. ফলজুল হক জোমাদ্দার, উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও ছোটবগী ইউপি চেয়ারম্যান তৌফিকুজ্জামান তনুর নাম শোনা যাচ্ছে।

এদিকে সাধারণ সম্পাদক পদের জন্যও বেশ কয়েকজনের নাম শোনা যাচ্ছে। তাঁরা হলেন-তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বড়বগী ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর মিয়া আলম মুন্সী, উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সহসভাপতি মো. কামরুল আহসান, সহসভাপতি আবুল কাশেম হাওলাদার ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আলী হাওলাদার।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুজ্জামান তনু বলেন, দীর্ঘদিন ধরে দলকে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করতে কাজ করেছি। কখনো দলীয় সিদ্ধাতের বাহিরে যাইনি। দলের নেতা-কর্মী ও কাউন্সিলররা যদি চায় আমাকে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত করবেন। আর যদি না চায় তাহলে বিগতদিনে যেভাবে দলের জন্য কাজ করেছি ভবিষ্যতেও সেভাবে কাজ করে যাবো।

উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো.,রেজবি-উল-কবির জোমাদ্দার মুঠোফোনে বলেন, তালতলী উপজেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের সকল প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করা হয়েছে। গত আটটি বছর আমি সভাপতির দায়িত্বে থেকে দলকে সুসংগঠিত করতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছি। ফলে গত ৪ মাস আগে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের মধ্যে ৬টি ইউনিয়নে দল মনোনিত প্রার্থীরা বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছে। কাঙ্ক্ষিত এ সম্মেলনে আমি পুনঃরায় সভাপতি প্রার্থী হিসেবে দলের নেতা-কর্মী ও কাউন্সিলরদের সমর্থন চেয়ে যাচ্ছি। আমি আশাবাদি দলের কাউন্সিলররা আমাকে পুনঃরায় সভাপতি  নির্বাচিত করবেন।

Related Posts