রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, সকাল ৮:৩৮
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২,সকাল ৮:৩৮

দ্বিতীয়বারের মতো জিতলেন সাইফুজ্জামান পিকুল 

যশোর জেলা পরিষদ নির্বাচন

যশোর প্রতিনিধি 

১৭ অক্টোবর, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

৫:৪৫ pm

সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে যশোর জেলা পরিষদ নির্বাচন। নির্বাচনে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাইফুজ্জামান পিকুল। প্রাপ্ত ভোট ৯৫৭। তাঁর একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিকল্প ধারার মারুফ হাসান কাজল আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৩৪৩ ভোট। এবারই প্রথমবারের মতো এখানে ইভিএমে ভোট নেওয়া হয়েছে।

এছাড়া নির্বাচনে সদস্য পদে ১ নম্বর ওয়ার্ডে (শার্শা উপজেলা) সালে আহমেদ মিন্টু ৭৩ ভোটে, ২ নম্বর ওয়ার্ডে (ঝিকরগাছা উপজেলা) রফিকুল ইসলাম বাপ্পী ৮৮ ভোট, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে (চৌগাছা উপজেলা) দেওয়ান তৌহিদুর রহমান ৭৪ ভোটে, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে (অভয়নগর উপজেলা), আব্দুর রউফ মোল্লা ৬৭ ভোটে, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে (বাঘারপাড়া উপজেলা) সাইফুজ্জামান চৌধুরী ভোলা ৭৯ ভোটে, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে (যশোর সদর উপজেলা) মো. জবেদ আলী ৮৫ ভোটে, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে (মণিরামপুর উপজেলা) গৌতম চক্রবর্তী – ভোটে এবং ৮ নম্বর ওয়ার্ডে (কেশবপুর উপজেলা) মো. আজিজুল ইসলাম ৫৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

এর রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সংরক্ষিত নারীর সদস্যদের নির্বাচনের ফলাফল পাওয়া যায়নি।
রিটার্নিং অফিসার জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খান বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

যশোর জেলা পরিষদে চেয়ারম্যানের একটি, ৮টি সাধারণ ওয়ার্ড এবং তিনটি সংরক্ষিত (মহিলা) ওয়ার্ডসহ মোট ১২টি পদে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। চেয়ারম্যান পদে দুইজনসহ মোট ৫১ প্রার্থী ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হন। জেলার ৮টি কেন্দ্রে ১৬টি ভোট কক্ষে এক হাজার ৩১৮ ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

Related Posts

দ্বিতীয়বারের মতো জিতলেন সাইফুজ্জামান পিকুল 

যশোর জেলা পরিষদ নির্বাচন

যশোর প্রতিনিধি 

১৭ অক্টোবর, ২০২২,

৫:৪৫ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে যশোর জেলা পরিষদ নির্বাচন। নির্বাচনে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাইফুজ্জামান পিকুল। প্রাপ্ত ভোট ৯৫৭। তাঁর একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিকল্প ধারার মারুফ হাসান কাজল আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৩৪৩ ভোট। এবারই প্রথমবারের মতো এখানে ইভিএমে ভোট নেওয়া হয়েছে।

এছাড়া নির্বাচনে সদস্য পদে ১ নম্বর ওয়ার্ডে (শার্শা উপজেলা) সালে আহমেদ মিন্টু ৭৩ ভোটে, ২ নম্বর ওয়ার্ডে (ঝিকরগাছা উপজেলা) রফিকুল ইসলাম বাপ্পী ৮৮ ভোট, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে (চৌগাছা উপজেলা) দেওয়ান তৌহিদুর রহমান ৭৪ ভোটে, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে (অভয়নগর উপজেলা), আব্দুর রউফ মোল্লা ৬৭ ভোটে, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে (বাঘারপাড়া উপজেলা) সাইফুজ্জামান চৌধুরী ভোলা ৭৯ ভোটে, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে (যশোর সদর উপজেলা) মো. জবেদ আলী ৮৫ ভোটে, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে (মণিরামপুর উপজেলা) গৌতম চক্রবর্তী – ভোটে এবং ৮ নম্বর ওয়ার্ডে (কেশবপুর উপজেলা) মো. আজিজুল ইসলাম ৫৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

এর রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সংরক্ষিত নারীর সদস্যদের নির্বাচনের ফলাফল পাওয়া যায়নি।
রিটার্নিং অফিসার জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খান বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

যশোর জেলা পরিষদে চেয়ারম্যানের একটি, ৮টি সাধারণ ওয়ার্ড এবং তিনটি সংরক্ষিত (মহিলা) ওয়ার্ডসহ মোট ১২টি পদে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। চেয়ারম্যান পদে দুইজনসহ মোট ৫১ প্রার্থী ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হন। জেলার ৮টি কেন্দ্রে ১৬টি ভোট কক্ষে এক হাজার ৩১৮ ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

Related Posts