মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, বিকাল ৪:১৩
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২,বিকাল ৪:১৩

বড় ভাইয়ের দায়ের কোপে ছোট ভাই খুন

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

৭ অক্টোবর, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

৮:৩৭ pm

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বড় ভাইয়ের দায়ের কোপে ছোট ভাই খুন হয়েছে।

শুক্রবার (৭ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলার পাগলা থানার নিগুয়ারী ইউনিয়নের কুরচাই গ্রামের ফামাইল পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঐ এলাকার ছাবেদ আলীর বড় ছেলে আমির উদ্দিনের দায়ের কোপে গুরুতর আহত হয় প্রবাসী সফির উদ্দিন। পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছফির উদ্দিন মারা যায়।

স্থানীয়রা জানান, ছাবেদ আলীর দুই ছেলে আমির উদ্দিন ও ছোট ছেলে সফির উদ্দিনের মধ্যে পৈত্রিক জমি নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলছিল। শুক্রবার দুপুরে বিরোধপূর্ণ জমির বাঁশ ঝাড়ে বড় ভাই আমির উদ্দিন বাঁশ কাটতে যান। এ নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে বড় ভাই আমির উদ্দিন দা দিয়ে ছোট ভাই সফির উদ্দিনের মাথায় কোপ দিলে গুরুতর আহত হয়। সফির উদ্দিনের চিৎকারে স্বজন ও প্রতিবেশিরা এসে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে পরিস্থিতির অবনতি হলে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তাইজুদ্দিন মৃধা বলেন, নিহত ছফির উদ্দিন দুই সন্তানের জনক। সে সৌদি আরব প্রবাসী। দুই মাস আগে ছফির উদ্দিন বাড়িতে আসে। বাঁশঝাড়ের বাঁশ কাটা নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বড় ভাই আমির উদ্দিন ছোট ভাই ছফির উদ্দিনের মাথায় দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। পরে সে মেরা যায়।

পাগলা থানার ওসি মো. রাশেদুজ্জামান বড় ভাইয়ের দায়ের কোপে ছোট ভাই খুন হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পরপরই আমির উদ্দিন পালিয়ে যায়। তাঁকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

Related Posts

বড় ভাইয়ের দায়ের কোপে ছোট ভাই খুন

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

৭ অক্টোবর, ২০২২,

৮:৩৭ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বড় ভাইয়ের দায়ের কোপে ছোট ভাই খুন হয়েছে।

শুক্রবার (৭ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলার পাগলা থানার নিগুয়ারী ইউনিয়নের কুরচাই গ্রামের ফামাইল পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঐ এলাকার ছাবেদ আলীর বড় ছেলে আমির উদ্দিনের দায়ের কোপে গুরুতর আহত হয় প্রবাসী সফির উদ্দিন। পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছফির উদ্দিন মারা যায়।

স্থানীয়রা জানান, ছাবেদ আলীর দুই ছেলে আমির উদ্দিন ও ছোট ছেলে সফির উদ্দিনের মধ্যে পৈত্রিক জমি নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলছিল। শুক্রবার দুপুরে বিরোধপূর্ণ জমির বাঁশ ঝাড়ে বড় ভাই আমির উদ্দিন বাঁশ কাটতে যান। এ নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে বড় ভাই আমির উদ্দিন দা দিয়ে ছোট ভাই সফির উদ্দিনের মাথায় কোপ দিলে গুরুতর আহত হয়। সফির উদ্দিনের চিৎকারে স্বজন ও প্রতিবেশিরা এসে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে পরিস্থিতির অবনতি হলে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তাইজুদ্দিন মৃধা বলেন, নিহত ছফির উদ্দিন দুই সন্তানের জনক। সে সৌদি আরব প্রবাসী। দুই মাস আগে ছফির উদ্দিন বাড়িতে আসে। বাঁশঝাড়ের বাঁশ কাটা নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বড় ভাই আমির উদ্দিন ছোট ভাই ছফির উদ্দিনের মাথায় দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। পরে সে মেরা যায়।

পাগলা থানার ওসি মো. রাশেদুজ্জামান বড় ভাইয়ের দায়ের কোপে ছোট ভাই খুন হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পরপরই আমির উদ্দিন পালিয়ে যায়। তাঁকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

Related Posts