রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, সকাল ৬:৫৮
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২,সকাল ৬:৫৮

দুই নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

মনিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি 

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

৮:১৮ pm

যশোরের মনিরামপুরে দুই নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার হয়েছে।শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে ও দুপুরে উপজেলার মুক্তারপুর ও কদমবাড়িয়া এলাকায় পৃথক ঘটনা দুটি ঘটে। স্বজনদের দাবি দুই নারী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

এঁদের একজন হলেন উপজেলার কদমবাড়ী গ্রামের হুমায়ুন কবীর সুজনের স্ত্রী সালমা বেগম (২৭)। অপরজন মুক্তারপুর গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী নিছার মোড়লের স্ত্রী মাসুরা বেগম (৪৫)। পৃথক দু’ঘটনায় মনিরামপুর থানায় দুটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

মনিরামপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোশারেফ হোসেন বলেন, শুক্রবার দুপুরে খাবার খাওয়ার সময় স্বামীর সাথে ঝগড়া হয় সালমার। এরপর তিনি ঘরে আড়ার সাথে ওড়না জড়িয়ে গলায় ফাঁস দেন। মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানতে সন্ধ্যায় মরনেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ঝাঁপা ক্যাম্প পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সামনুর মোল্লা সোহান বলেন, মাসুরার স্বামী ৩ বছর ধরে মালয়েশিয়া আছেন। তিনি দীর্ঘদিন মানসিক রোগে ভুগছেন। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতের খাবার শেষে নিজ ঘরে ঘুমাতে যান মাসুরা। এরপর শুক্রবার ভোরে বাড়ির লোকজন ফ্যানের হুকের সাথে শাড়ি জড়ানো অবস্থায় তাকে ঝুলে থাকতে দেখেন।

এসআই সোহান বলেন, ‘মানসিক রোগি হওয়ায় মাসুরা বেগম আত্মহত্যা করেছেন বলে জানতে পেরেছি। স্বজনদের অনুরোধে বিনা ময়নাতদন্তে মৃতদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।’

Related Posts

দুই নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

মনিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি 

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২,

৮:১৮ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

যশোরের মনিরামপুরে দুই নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার হয়েছে।শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে ও দুপুরে উপজেলার মুক্তারপুর ও কদমবাড়িয়া এলাকায় পৃথক ঘটনা দুটি ঘটে। স্বজনদের দাবি দুই নারী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

এঁদের একজন হলেন উপজেলার কদমবাড়ী গ্রামের হুমায়ুন কবীর সুজনের স্ত্রী সালমা বেগম (২৭)। অপরজন মুক্তারপুর গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী নিছার মোড়লের স্ত্রী মাসুরা বেগম (৪৫)। পৃথক দু’ঘটনায় মনিরামপুর থানায় দুটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

মনিরামপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোশারেফ হোসেন বলেন, শুক্রবার দুপুরে খাবার খাওয়ার সময় স্বামীর সাথে ঝগড়া হয় সালমার। এরপর তিনি ঘরে আড়ার সাথে ওড়না জড়িয়ে গলায় ফাঁস দেন। মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানতে সন্ধ্যায় মরনেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ঝাঁপা ক্যাম্প পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সামনুর মোল্লা সোহান বলেন, মাসুরার স্বামী ৩ বছর ধরে মালয়েশিয়া আছেন। তিনি দীর্ঘদিন মানসিক রোগে ভুগছেন। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতের খাবার শেষে নিজ ঘরে ঘুমাতে যান মাসুরা। এরপর শুক্রবার ভোরে বাড়ির লোকজন ফ্যানের হুকের সাথে শাড়ি জড়ানো অবস্থায় তাকে ঝুলে থাকতে দেখেন।

এসআই সোহান বলেন, ‘মানসিক রোগি হওয়ায় মাসুরা বেগম আত্মহত্যা করেছেন বলে জানতে পেরেছি। স্বজনদের অনুরোধে বিনা ময়নাতদন্তে মৃতদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।’

Related Posts