মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, বিকাল ৫:০১
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২,বিকাল ৫:০১

আগুনে পুড়েছে পোষাক কারখানা, মাছের আড়ৎ

মহিদুল ইসলাম, শরণখোলা (বাগেরহাট)

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

৪:০৩ pm

বাগেরহাটের শরণখোলার লাকুড়তলা বাজারে অগ্নিকান্ডের ঘটনাী ঘটেছে। আগুনে একটি পোষাক তৈরীর কারখানা, একটি মাছের আড়ৎ ও একটি বসতঘর পুড়ে গেছে।
আজ শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে এই অগ্নিান্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রায় আধা ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়।
ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানিয়েছেন, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।
ভুক্তভোগীদের দাবি আগুনে পুড়ে গেছে ১৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল।

মেসার্স ভাই-বোন ফ্যাশনের মালিক আনোয়ার গাজী জানান, তার কারখানায় ট্রাউজার, গেঞ্জিসহ শীতের পোষাক তৈরি করা হতো। এসব তৈরি পোষাক তিনি উপজেলার বিভিন্ন দোকানে বিক্রি করতেন। আজ (শুক্রবার) তার কারখানাটি বন্ধ ছিল। এ অবস্থায় আগুন লেগে কারখানার চারটি জুকি মেশিন, পোষাক তৈরীর বিভিন্ন ধরণের কাপড় ও অন্যান্য মালামাল মিলিয়ে তার ১০ থেকে ১২লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

মেসার্স মোলস্না ফিশের মালিক জলিল মোল্যা জানান, আগুনে পুড়ে তার প্রায় লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

শরণখোলা ফায়ার সর্ভিস স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ ফিরোজ আলী জানান, বন্ধ থাকা পোষাক তৈরীর কারখানা থেকে শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহযোগিতায় যথাসময়ে আগুন নিয়ন্ত্রন করায় বড় ধরণের ক্ষতির হাত থেকে বাজারটি রক্ষা পেয়েছে।

শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নূর-ই আলম সিদ্দিকী জানান, খবর পেয়ে অগ্নিকান্ড এলাকা পরিদর্শন করা হয়েছে। সরকারি বিধি অনুযায়ী ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতার চেষ্টা করা হবে।

Related Posts

আগুনে পুড়েছে পোষাক কারখানা, মাছের আড়ৎ

মহিদুল ইসলাম, শরণখোলা (বাগেরহাট)

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২,

৪:০৩ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

বাগেরহাটের শরণখোলার লাকুড়তলা বাজারে অগ্নিকান্ডের ঘটনাী ঘটেছে। আগুনে একটি পোষাক তৈরীর কারখানা, একটি মাছের আড়ৎ ও একটি বসতঘর পুড়ে গেছে।
আজ শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে এই অগ্নিান্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রায় আধা ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়।
ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানিয়েছেন, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।
ভুক্তভোগীদের দাবি আগুনে পুড়ে গেছে ১৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল।

মেসার্স ভাই-বোন ফ্যাশনের মালিক আনোয়ার গাজী জানান, তার কারখানায় ট্রাউজার, গেঞ্জিসহ শীতের পোষাক তৈরি করা হতো। এসব তৈরি পোষাক তিনি উপজেলার বিভিন্ন দোকানে বিক্রি করতেন। আজ (শুক্রবার) তার কারখানাটি বন্ধ ছিল। এ অবস্থায় আগুন লেগে কারখানার চারটি জুকি মেশিন, পোষাক তৈরীর বিভিন্ন ধরণের কাপড় ও অন্যান্য মালামাল মিলিয়ে তার ১০ থেকে ১২লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

মেসার্স মোলস্না ফিশের মালিক জলিল মোল্যা জানান, আগুনে পুড়ে তার প্রায় লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

শরণখোলা ফায়ার সর্ভিস স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ ফিরোজ আলী জানান, বন্ধ থাকা পোষাক তৈরীর কারখানা থেকে শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহযোগিতায় যথাসময়ে আগুন নিয়ন্ত্রন করায় বড় ধরণের ক্ষতির হাত থেকে বাজারটি রক্ষা পেয়েছে।

শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নূর-ই আলম সিদ্দিকী জানান, খবর পেয়ে অগ্নিকান্ড এলাকা পরিদর্শন করা হয়েছে। সরকারি বিধি অনুযায়ী ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতার চেষ্টা করা হবে।

Related Posts