মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, বিকাল ৫:২০
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২,বিকাল ৫:২০

তালতলীতে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আহত ৩০

হায়াতুজ্জামান মিরাজ, আমতলী 

২ জুলাই, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

৮:৫৬ pm

বরগুনার তালতলীতে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় অন্তত ৩০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

আজ শনিবার (২ জুলাই) তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন তপু এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার সোনাকাটা ইউনিয়নের ফকিরহাট বাজার ইদুপাড়া গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র থেকে জানা যায়, গত ২৯ জুন সোনাকাটা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর থেকে ওই ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের তালা প্রতীকে নব-নির্বচিত ইউপি সদস্য টুকু সিকদার ও তার প্রতিদ্বন্ধী পরাজিত ফুটবল প্রতীকের প্রার্থী মন্টু খলিফার কর্মী- সমথর্কদের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করতে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সন্ধ্যার ফকিরহাট বাজারে ওই দুই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোঠা নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

সংঘর্ষে উভয় পক্ষের প্রায় ৩০ জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে বরিশাল, পটুয়াখালী, আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের অনেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে গেছেন।

বিজয়ী ইউপি সদস্য টুকু সিকদারের অভিযোগ করে বলেন, পরাজিত সদস্য প্রার্থী মন্টু খলিফার লোকজন বাজারে বসে ভোট দেওয়া না দেওয়া নিয়ে সাধারণ জনগণের উপর হামলা চালিয়েছে।

পরাজিত সদস্য প্রার্থী মন্টু খলিফা উল্টো অভিযোগ করে বলেন, তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিজয়ী ইউপি সদস্য টুকু সিকদার ও তার লোকজন তার এবং তার কর্মীদের উপর হামলা চালিয়েছে। এতে অনেকে আহত হয়েছে।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন (তপু) মুঠোফোনে বলেন, সংঘর্ষের খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Related Posts

তালতলীতে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আহত ৩০

হায়াতুজ্জামান মিরাজ, আমতলী 

২ জুলাই, ২০২২,

৮:৫৬ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

বরগুনার তালতলীতে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় অন্তত ৩০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

আজ শনিবার (২ জুলাই) তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন তপু এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার সোনাকাটা ইউনিয়নের ফকিরহাট বাজার ইদুপাড়া গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র থেকে জানা যায়, গত ২৯ জুন সোনাকাটা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর থেকে ওই ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের তালা প্রতীকে নব-নির্বচিত ইউপি সদস্য টুকু সিকদার ও তার প্রতিদ্বন্ধী পরাজিত ফুটবল প্রতীকের প্রার্থী মন্টু খলিফার কর্মী- সমথর্কদের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করতে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সন্ধ্যার ফকিরহাট বাজারে ওই দুই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোঠা নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

সংঘর্ষে উভয় পক্ষের প্রায় ৩০ জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে বরিশাল, পটুয়াখালী, আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের অনেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে গেছেন।

বিজয়ী ইউপি সদস্য টুকু সিকদারের অভিযোগ করে বলেন, পরাজিত সদস্য প্রার্থী মন্টু খলিফার লোকজন বাজারে বসে ভোট দেওয়া না দেওয়া নিয়ে সাধারণ জনগণের উপর হামলা চালিয়েছে।

পরাজিত সদস্য প্রার্থী মন্টু খলিফা উল্টো অভিযোগ করে বলেন, তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিজয়ী ইউপি সদস্য টুকু সিকদার ও তার লোকজন তার এবং তার কর্মীদের উপর হামলা চালিয়েছে। এতে অনেকে আহত হয়েছে।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন (তপু) মুঠোফোনে বলেন, সংঘর্ষের খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Related Posts