শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২, বিকাল ৫:৪২
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২,বিকাল ৫:৪২

শেষ হলো বাজেট অধিবেশন

চারিদিক ডেস্ক

৩০ জুন, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

১১:০৪ pm

শেষ হলো একাদশ জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন। বৃহস্পতিবার রাতে অধিবেশন সমাপ্তির বিষয়ে রাষ্ট্রপতির আদেশ পড়ে শুনিয়ে অধিবেশনের ইতি টানেন স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

এর আগে অধিবেশনে সমাপনী বক্তব্য দেন সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গত ৫ জুন শুরু হয় এই অধিবেশন। ৯ জুন ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। যা বৃহস্পতিবার পাস হয়। বুধবার পাস হয় অর্থ বিল।

অর্থমন্ত্রীর বাজেট পেশের পর পুরো অধিবেশনজুড়ে এর ওপর আলোচনা করেন সংসদ সদস্যরা। মহামারিকালে গত দুই বছরের চেয়ে এবারের বাজেট অধিবেশন ছিল দীর্ঘ। বাজেট নিয়ে আলোচনাও হয়েছে গত দুই বছরের তুলনায় অনেক বেশি সময় ধরে।

২০২০ সালে বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে সংক্ষিপ্ত বাজেট অধিবেশন হয়েছিল। নয় দিনের ওই বাজেট অধিবেশনে ১৮ জন সংসদ সদস্য বাজেট নিয়ে আলোচনা করেছিলেন।

অর্থমন্ত্রীর বাজেট উত্থাপনের পর গত ১৩ জুন বিদায়ী ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য ১৭ হাজার ৫২৪ কোটি ৬৪ লাখ ৫ হাজার টাকার সম্পূরক বাজেট সংসদে পাস হয়।

২০ কার্য দিবসের এই অধিবেশনে নতুন অর্থবছরের বাজেট ও আগের বছরের সম্পূরক বাজেটের ওপর মোট ৩৮ ঘণ্টা ৫৭ মিনিট আলোচনা করেন সরকারি ও বিরোধী দলের ২২৮ জন সংসদ সদস্য।

এই অধিবেশন আগামী ৪ জুলাই শেষ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কার্য উপদেষ্টা কমিটি। তবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ার কারণে অধিবেশন আগেভাগে শেষ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তারা।

এবারের অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ৮১টি প্রশ্ন করেন সংসদ সদস্যরা। যার মধ্যে ৪১টি প্রশ্নের উত্তর দেন সংসদ নেতা।

অন্য মন্ত্রীদের কাছে ১ হাজার ৬৪৫টি প্রশ্ন করেন সংসদ সদস্যরা। মন্ত্রীরা উত্তর দিয়েছেন ১ হাজার ৩১১টি প্রশ্নের। এই অধিবেশনে পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে একটি সাধারণ প্রস্তাবের ওপর আলোচনা ও গ্রহণ করা হয়।

Related Posts

শেষ হলো বাজেট অধিবেশন

চারিদিক ডেস্ক

৩০ জুন, ২০২২,

১১:০৪ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

শেষ হলো একাদশ জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন। বৃহস্পতিবার রাতে অধিবেশন সমাপ্তির বিষয়ে রাষ্ট্রপতির আদেশ পড়ে শুনিয়ে অধিবেশনের ইতি টানেন স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

এর আগে অধিবেশনে সমাপনী বক্তব্য দেন সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গত ৫ জুন শুরু হয় এই অধিবেশন। ৯ জুন ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। যা বৃহস্পতিবার পাস হয়। বুধবার পাস হয় অর্থ বিল।

অর্থমন্ত্রীর বাজেট পেশের পর পুরো অধিবেশনজুড়ে এর ওপর আলোচনা করেন সংসদ সদস্যরা। মহামারিকালে গত দুই বছরের চেয়ে এবারের বাজেট অধিবেশন ছিল দীর্ঘ। বাজেট নিয়ে আলোচনাও হয়েছে গত দুই বছরের তুলনায় অনেক বেশি সময় ধরে।

২০২০ সালে বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে সংক্ষিপ্ত বাজেট অধিবেশন হয়েছিল। নয় দিনের ওই বাজেট অধিবেশনে ১৮ জন সংসদ সদস্য বাজেট নিয়ে আলোচনা করেছিলেন।

অর্থমন্ত্রীর বাজেট উত্থাপনের পর গত ১৩ জুন বিদায়ী ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য ১৭ হাজার ৫২৪ কোটি ৬৪ লাখ ৫ হাজার টাকার সম্পূরক বাজেট সংসদে পাস হয়।

২০ কার্য দিবসের এই অধিবেশনে নতুন অর্থবছরের বাজেট ও আগের বছরের সম্পূরক বাজেটের ওপর মোট ৩৮ ঘণ্টা ৫৭ মিনিট আলোচনা করেন সরকারি ও বিরোধী দলের ২২৮ জন সংসদ সদস্য।

এই অধিবেশন আগামী ৪ জুলাই শেষ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কার্য উপদেষ্টা কমিটি। তবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ার কারণে অধিবেশন আগেভাগে শেষ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তারা।

এবারের অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ৮১টি প্রশ্ন করেন সংসদ সদস্যরা। যার মধ্যে ৪১টি প্রশ্নের উত্তর দেন সংসদ নেতা।

অন্য মন্ত্রীদের কাছে ১ হাজার ৬৪৫টি প্রশ্ন করেন সংসদ সদস্যরা। মন্ত্রীরা উত্তর দিয়েছেন ১ হাজার ৩১১টি প্রশ্নের। এই অধিবেশনে পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে একটি সাধারণ প্রস্তাবের ওপর আলোচনা ও গ্রহণ করা হয়।

Related Posts