শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২, রাত ৯:০৪
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২,রাত ৯:০৪

সাংবাদিক পরিবারের ওপর মাদক কারবারিদের হামলা

২১ জুন, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

৬:১৫ pm

মোংলা অফিস : বাগেরহাটের মোংলা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, দৈনিক ভোরের কাগজ ও জন্মভূমির মোংলা প্রতিনিধি এবং স্থানীয় সংবাদপত্র এজেন্ট সাংবাদিক হাসান গাজীসহ তার পরিবারের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে মারপিট করেছেন চিহ্নিত মাদক কারবারি আব্বাস গং। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী থানায় এজাহার দিয়েছেন।

আজ মঙ্গলবাব সকালে পৌর শহরের মোর্শেদ সড়ক এলাকার শেখ রাসেল লেনে এ ঘটনা ঘটে।

মোংলা থানার এজাহারে জানা গেছে, পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের মোর্শেদ সড়ক এলাকার শেখ রাসেল লেনের বাসিন্দা ইসমাইলের ছেলে আব্বাস দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় প্রকাশ্যে মাদকের কারবার ও আড্ডা বসিয়ে আসছেন। তার এ অপকর্মে এলাকার পরিবেশ নষ্ট ও স্থানীয় যুবকেরা মাদক আসক্ত হয়ে পড়ায় এতে বাধা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিলেন প্রতিবেশী বাসিন্দা সাংবাদিক হাসান গাজী। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাদক কারবারিরা আব্বাস গং মঙ্গলবার সকালে হাসান গাজীর বসতবাড়িতে ঢুকে তার স্ত্রীর উপর অতর্কিত হামলা চালান। খবর পেয়ে হাসান গাজী ও তার ছেলে বাজার থেকে বাড়িতে ছুটে গেলে তাদের উপরও হামলা চালিয়ে মারপিট করেন আব্বাস গং। এ সময় হাসান গাজী ও তার ছেলে এবং স্ত্রী আহত হন।

এদিকে, ঘটনার দিন দুপুরে মোংলা থানায় হামলাকারী আব্বাসের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করেছেন হাসান গাজী।

মোর্শেদ সড়ক ও রাসেল লেনের বাসিন্দারা বলেন, মাদক সম্রাট আব্বাস গংয়ের অপকর্ম ও মাদক কারবারে আমরা এলাকাবাসী অতিষ্ঠ। তার অপকর্মে কেউ বাধা দিলে তাকে ভয়ভীতি, হুমকি-ধামকি ও মারপিটসহ নানাভাবে হয়রানি করে থাকেন। ভয়ে তার বিরুদ্ধে এলাকার কেউ মুখ খোলার সাহস পায়না। সাংবাদিক হাসান গাজী-এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় তাকেসহ তার পরিবারের উপর হামলা চালিয়েছে। আমরা এলাকাবাসী হিসেবে প্রশাসনের কাছে এর কঠিন বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

মোংলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বলেন, সাংবাদিক হাসান গাজী ও তার পরিবারের উপর হামলা-মারপিটের একটি এজাহার পেয়েছি। এজাহারপত্র পেয়েই অভিযুক্তদের আটকে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি খুব গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে।

এদিকে, সাংবাদিক হাসান গাজী ও তার পরিবারের উপর অতর্কিত এ হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দ্রুত অভিযুক্ত আব্বাস গংদের আটক করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন মোংলা প্রেস ক্লাবসহ স্থানীয় কর্মরত সকল সাংবাদিকেরা।

Related Posts

সাংবাদিক পরিবারের ওপর মাদক কারবারিদের হামলা

২১ জুন, ২০২২,

৬:১৫ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

মোংলা অফিস : বাগেরহাটের মোংলা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, দৈনিক ভোরের কাগজ ও জন্মভূমির মোংলা প্রতিনিধি এবং স্থানীয় সংবাদপত্র এজেন্ট সাংবাদিক হাসান গাজীসহ তার পরিবারের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে মারপিট করেছেন চিহ্নিত মাদক কারবারি আব্বাস গং। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী থানায় এজাহার দিয়েছেন।

আজ মঙ্গলবাব সকালে পৌর শহরের মোর্শেদ সড়ক এলাকার শেখ রাসেল লেনে এ ঘটনা ঘটে।

মোংলা থানার এজাহারে জানা গেছে, পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের মোর্শেদ সড়ক এলাকার শেখ রাসেল লেনের বাসিন্দা ইসমাইলের ছেলে আব্বাস দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় প্রকাশ্যে মাদকের কারবার ও আড্ডা বসিয়ে আসছেন। তার এ অপকর্মে এলাকার পরিবেশ নষ্ট ও স্থানীয় যুবকেরা মাদক আসক্ত হয়ে পড়ায় এতে বাধা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিলেন প্রতিবেশী বাসিন্দা সাংবাদিক হাসান গাজী। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাদক কারবারিরা আব্বাস গং মঙ্গলবার সকালে হাসান গাজীর বসতবাড়িতে ঢুকে তার স্ত্রীর উপর অতর্কিত হামলা চালান। খবর পেয়ে হাসান গাজী ও তার ছেলে বাজার থেকে বাড়িতে ছুটে গেলে তাদের উপরও হামলা চালিয়ে মারপিট করেন আব্বাস গং। এ সময় হাসান গাজী ও তার ছেলে এবং স্ত্রী আহত হন।

এদিকে, ঘটনার দিন দুপুরে মোংলা থানায় হামলাকারী আব্বাসের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করেছেন হাসান গাজী।

মোর্শেদ সড়ক ও রাসেল লেনের বাসিন্দারা বলেন, মাদক সম্রাট আব্বাস গংয়ের অপকর্ম ও মাদক কারবারে আমরা এলাকাবাসী অতিষ্ঠ। তার অপকর্মে কেউ বাধা দিলে তাকে ভয়ভীতি, হুমকি-ধামকি ও মারপিটসহ নানাভাবে হয়রানি করে থাকেন। ভয়ে তার বিরুদ্ধে এলাকার কেউ মুখ খোলার সাহস পায়না। সাংবাদিক হাসান গাজী-এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় তাকেসহ তার পরিবারের উপর হামলা চালিয়েছে। আমরা এলাকাবাসী হিসেবে প্রশাসনের কাছে এর কঠিন বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

মোংলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বলেন, সাংবাদিক হাসান গাজী ও তার পরিবারের উপর হামলা-মারপিটের একটি এজাহার পেয়েছি। এজাহারপত্র পেয়েই অভিযুক্তদের আটকে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি খুব গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে।

এদিকে, সাংবাদিক হাসান গাজী ও তার পরিবারের উপর অতর্কিত এ হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দ্রুত অভিযুক্ত আব্বাস গংদের আটক করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন মোংলা প্রেস ক্লাবসহ স্থানীয় কর্মরত সকল সাংবাদিকেরা।

Related Posts