শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২, রাত ৯:১৪
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২,রাত ৯:১৪

ইনস্যুরেন্স কর্মী পরিচয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে গরুর খোঁজ নিতেন তারা

১৮ জুন, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

২:০৯ pm

মহিদুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টার, শরণখোলা (বাগেরহাট) : বাগেরহাটের শরণখোলায় গরু চুরি করে পালানোর সময় নারীসহ তিনজনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে গ্রামবাসী। এ সময় তাদের কাছ থেকে দুটি গরু উদ্ধার করা হয়েছে। যার ম্যল্য প্রায় এক লাখ টাকা।

শনিবার (১৮ জুন) দুপুরে আটককৃতদের আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

তারা হলেন, উপজেলার রায়েন্দা ইউনিয়নের জিলবুনিয়া গ্রামের মৃত জাহাঙ্গীর হাওলাদারের স্ত্রী হালিমা বেগম (৩৫), ধানসাগর ইউনিয়নের দক্ষিণ বাধাল গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে ছরোয়ার হাওলাদার (৪০) ও ইদ্রিস হাওলাদার (৩২)।

শুক্রবার রাত ৯টার দিকে ধানসাগর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে থেকে গরুর মালিক হালিম মোল্লাসহ গ্রামবাসী তাদেরকে আটক করেন। পরে ওই তিনজনকে গরুসহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন তারা।

শরণখোলা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুব্রত কুমার জানান, শরণখোলার বিভিন্ন এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে গরু চুরির ঘটনা ঘটছে। আটক তিন জন সংঘবদ্ধ গরু চোর চক্রের সদস্য। চক্রের সদস্য হালিমা বেগম ইনস্যুরেন্স কোম্পানির কর্মী পরিচয়ে গ্রামে গ্রামে ঘুরে কার গরু কোথায় থাকে সেই খবর সংগ্রহ করেন। এরপর দলের পুরুষ সদস্যদের কাছে জানালে তারা সময় সুযোগ বুঝে চুরি করেন।

পুলিশ পরিদর্শক সুব্রত কুমার জানান, আটক তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। চক্রের অন্য সদস্যদের ধরার চেষ্টা চলছে।

Related Posts

ইনস্যুরেন্স কর্মী পরিচয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে গরুর খোঁজ নিতেন তারা

১৮ জুন, ২০২২,

২:০৯ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

মহিদুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টার, শরণখোলা (বাগেরহাট) : বাগেরহাটের শরণখোলায় গরু চুরি করে পালানোর সময় নারীসহ তিনজনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে গ্রামবাসী। এ সময় তাদের কাছ থেকে দুটি গরু উদ্ধার করা হয়েছে। যার ম্যল্য প্রায় এক লাখ টাকা।

শনিবার (১৮ জুন) দুপুরে আটককৃতদের আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

তারা হলেন, উপজেলার রায়েন্দা ইউনিয়নের জিলবুনিয়া গ্রামের মৃত জাহাঙ্গীর হাওলাদারের স্ত্রী হালিমা বেগম (৩৫), ধানসাগর ইউনিয়নের দক্ষিণ বাধাল গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে ছরোয়ার হাওলাদার (৪০) ও ইদ্রিস হাওলাদার (৩২)।

শুক্রবার রাত ৯টার দিকে ধানসাগর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে থেকে গরুর মালিক হালিম মোল্লাসহ গ্রামবাসী তাদেরকে আটক করেন। পরে ওই তিনজনকে গরুসহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন তারা।

শরণখোলা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুব্রত কুমার জানান, শরণখোলার বিভিন্ন এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে গরু চুরির ঘটনা ঘটছে। আটক তিন জন সংঘবদ্ধ গরু চোর চক্রের সদস্য। চক্রের সদস্য হালিমা বেগম ইনস্যুরেন্স কোম্পানির কর্মী পরিচয়ে গ্রামে গ্রামে ঘুরে কার গরু কোথায় থাকে সেই খবর সংগ্রহ করেন। এরপর দলের পুরুষ সদস্যদের কাছে জানালে তারা সময় সুযোগ বুঝে চুরি করেন।

পুলিশ পরিদর্শক সুব্রত কুমার জানান, আটক তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। চক্রের অন্য সদস্যদের ধরার চেষ্টা চলছে।

Related Posts