শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২, রাত ৯:১১
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২,রাত ৯:১১

ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ কনস্টেবল গ্রেপ্তার

১৮ জুন, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

১২:৪৮ pm

খুলনা অফিস : ধর্ষণের অভিযোগে খুলনার আড়ংঘাটা থানার পুলিশ কনস্টেবল (কম্পিউটার অপারেটর) স্বদেশ বালাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার (১৭ জুন) বিকেল পৌনে ৫টার দিকে তাকে আড়ংঘাটা থেকে গ্রেপ্তার করে খানজাহান আলী থানা পুলিশ। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও খানজাহান আলী থানার উপপরিদর্শক রেজোয়ানুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, খানজাহান আলী থানাধীন শিরোমনি এলাকায় থাকেন ওই নারী (৩০)। গত ৫ বছর ধরে তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিল। সম্পর্কের জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে স্বদেশ বালা ভিকটিমের বাসায় যান। বাসায় কেউ না থাকার সুবাদে স্বদেশ তাকে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনা কাউকে না বলার জন্য শাসিয়ে যান তাকে। এক পর্যয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন ভুক্তভোগী ওই নারী। পরবর্তীতে তিনি আইনে আশ্রয় নিয়ে খানজাহান আলী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। পরে বিকেল পৌনে ৫টার দিকে তাকে থানা থেকে আটক করা হয়। এরপর তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

খানজাহান আলী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামাল হোসেন খান জানান, শুক্রবার থানায় বাদী হয়ে ওই নারী ধর্ষণের অভিযোগ এনে স্বদেশ বালার বিরুদ্ধে মামলা দয়ের করেন। শুক্রবার তাকে আড়ংঘাটা থানা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

Related Posts

ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ কনস্টেবল গ্রেপ্তার

১৮ জুন, ২০২২,

১২:৪৮ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

খুলনা অফিস : ধর্ষণের অভিযোগে খুলনার আড়ংঘাটা থানার পুলিশ কনস্টেবল (কম্পিউটার অপারেটর) স্বদেশ বালাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার (১৭ জুন) বিকেল পৌনে ৫টার দিকে তাকে আড়ংঘাটা থেকে গ্রেপ্তার করে খানজাহান আলী থানা পুলিশ। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও খানজাহান আলী থানার উপপরিদর্শক রেজোয়ানুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, খানজাহান আলী থানাধীন শিরোমনি এলাকায় থাকেন ওই নারী (৩০)। গত ৫ বছর ধরে তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিল। সম্পর্কের জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে স্বদেশ বালা ভিকটিমের বাসায় যান। বাসায় কেউ না থাকার সুবাদে স্বদেশ তাকে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনা কাউকে না বলার জন্য শাসিয়ে যান তাকে। এক পর্যয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন ভুক্তভোগী ওই নারী। পরবর্তীতে তিনি আইনে আশ্রয় নিয়ে খানজাহান আলী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। পরে বিকেল পৌনে ৫টার দিকে তাকে থানা থেকে আটক করা হয়। এরপর তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

খানজাহান আলী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামাল হোসেন খান জানান, শুক্রবার থানায় বাদী হয়ে ওই নারী ধর্ষণের অভিযোগ এনে স্বদেশ বালার বিরুদ্ধে মামলা দয়ের করেন। শুক্রবার তাকে আড়ংঘাটা থানা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

Related Posts