রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, সকাল ৭:১৩
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২,সকাল ৭:১৩

‘পদ্মাসেতু শুধুমাত্র একটা ব্রিজ নয়, আত্মসম্মান ও আত্মবিশ্বাসের প্রতীক’

১৮ জুন, ২০২২,

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

১২:৩০ pm

সুমাইয়া আখতার তারিন, ববি : আগামীকাল রোববার বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (ববি) ‘পদ্মা সেতু ও এর আর্থ-সামাজিক তাৎপর্য’ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এ বিষয়ে সম্মেলন আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক অসীম কুমার নন্দী বলেন, ‘সম্মেলনে পদ্মাসেতুটা আমরা টপিক হিসেবে নিয়েছি। কারণ, পদ্মাসেতু শুধু একটা ব্রিজ নয়, এটা জাতীয় আত্মসম্মান, আত্মবিশ্বাসের প্রতীক। এ ব্রীজ নিয়ে রাজনৈতিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক প্রভাব পড়েছে। এজন্য আমরা এ কনফারেন্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এখানে পদ্মাসেতু নিয়ে ২৩টা পেপার প্রেজেন্ট করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাব্যবস্থার একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ হচ্ছে রিসার্চ। এখানেই একটা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিক। রিসার্চের জন্য প্রয়োজন সেমিনার এবং কনফারেন্স। কারন, যখন রিসার্চ প্রোপোজাল তৈরি করা হয় তখন মেথডস, থিওরি, অবজেক্টিভ ঠিক আছে কিনা সেটা যাচাই করার প্রয়োজন হয়। এটা কনফারেন্সে প্রেজেন্ট করার সময় উপস্থিত পার্টিসিপ্যান্টদের কমেন্ট নিয়ে পেপারটাকে আরও বেশি ডেভেলপ করার সুযোগ থাকে। এটাই হচ্ছে মূলত কনফারেন্সের উদ্দেশ্য।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ কর্তৃক আয়োজিত আন্তর্জাতিক এ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন পদ্মা সেতুর এক্সপার্ট প্যানেলের সদস্য ও ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের এমরিটাস অধ্যাপক ড. আইনুন নিশাত।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ছাদেকুল আরেফিনের সভাপতিত্বে কনফারেন্সে মূল প্রবন্ধ পাঠক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন দক্ষিণ এশীয় রাজনীতি বিশেষজ্ঞ ও ভারতের জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের দক্ষিন এশিয়া গবেষণা কেন্দ্রের অধ্যাপক ড. সঞ্জয় কে ভরদ্বাজ। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসাবে একুশে পদক জয়ী সাংবাদিক ও কলামিষ্ট বীর মুক্তিযোদ্ধা অজয় দাশগুপ্ত ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বদরুজ্জামান ভূঁইয়া উপস্থিত থাকবেন ।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, সম্মেলনে প্রধান অতিথি ড. আইনুন নিশাত পদ্মা সেতুর নির্মান পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন নিয়ে আলোচনা করবেন। দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলে পদ্মা সেতুর প্রভাব নিয়ে অধ্যাপক ড. সঞ্জয় কে ভরদ্বাজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ছাদেকুল আরেফিন সেশনে উপস্থাপিত প্রবন্ধের উপর বিশ্লেষনধর্মী আলোচনা করবেন।

এছাড়াও বীর মুক্তিযোদ্ধা অজয় দাসগুপ্ত ‘স্বর্নালী সম্ভাবনার যুগে’ শিরোনামে পদ্মা সেতুর বিভিন্ন সম্ভাব্য প্রভাব ও পর্যটন বিশেষজ্ঞ ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বদরুজ্জামান ভূঁইয়া পদ্মা সেতুর কারণে পর্যটন শিল্পের সম্ভাবনা বিষয়টি তুলে ধরবেন। কনফারেন্সে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করবেন কনফারেন্স আয়োজক কমিটির আহবায়ক ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক অসীম কুমার নন্দী। এছাড়া তিনি এদিন সন্ধ্যায় কনফারেন্সের সমাপনি সেশনে কনফারেন্সে উপস্থাপিত ২৩টি পেপারের সারমর্ম তুলে ধরবেন।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক এ কনফারেন্সে দেশ-বিদেশের খ্যাতনামা অধ্যাপক, গবেষক, সাংবাদিক, কলামিস্টসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন।

Related Posts

‘পদ্মাসেতু শুধুমাত্র একটা ব্রিজ নয়, আত্মসম্মান ও আত্মবিশ্বাসের প্রতীক’

১৮ জুন, ২০২২,

১২:৩০ pm

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp

সুমাইয়া আখতার তারিন, ববি : আগামীকাল রোববার বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (ববি) ‘পদ্মা সেতু ও এর আর্থ-সামাজিক তাৎপর্য’ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এ বিষয়ে সম্মেলন আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক অসীম কুমার নন্দী বলেন, ‘সম্মেলনে পদ্মাসেতুটা আমরা টপিক হিসেবে নিয়েছি। কারণ, পদ্মাসেতু শুধু একটা ব্রিজ নয়, এটা জাতীয় আত্মসম্মান, আত্মবিশ্বাসের প্রতীক। এ ব্রীজ নিয়ে রাজনৈতিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক প্রভাব পড়েছে। এজন্য আমরা এ কনফারেন্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এখানে পদ্মাসেতু নিয়ে ২৩টা পেপার প্রেজেন্ট করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাব্যবস্থার একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ হচ্ছে রিসার্চ। এখানেই একটা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিক। রিসার্চের জন্য প্রয়োজন সেমিনার এবং কনফারেন্স। কারন, যখন রিসার্চ প্রোপোজাল তৈরি করা হয় তখন মেথডস, থিওরি, অবজেক্টিভ ঠিক আছে কিনা সেটা যাচাই করার প্রয়োজন হয়। এটা কনফারেন্সে প্রেজেন্ট করার সময় উপস্থিত পার্টিসিপ্যান্টদের কমেন্ট নিয়ে পেপারটাকে আরও বেশি ডেভেলপ করার সুযোগ থাকে। এটাই হচ্ছে মূলত কনফারেন্সের উদ্দেশ্য।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ কর্তৃক আয়োজিত আন্তর্জাতিক এ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন পদ্মা সেতুর এক্সপার্ট প্যানেলের সদস্য ও ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের এমরিটাস অধ্যাপক ড. আইনুন নিশাত।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ছাদেকুল আরেফিনের সভাপতিত্বে কনফারেন্সে মূল প্রবন্ধ পাঠক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন দক্ষিণ এশীয় রাজনীতি বিশেষজ্ঞ ও ভারতের জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের দক্ষিন এশিয়া গবেষণা কেন্দ্রের অধ্যাপক ড. সঞ্জয় কে ভরদ্বাজ। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসাবে একুশে পদক জয়ী সাংবাদিক ও কলামিষ্ট বীর মুক্তিযোদ্ধা অজয় দাশগুপ্ত ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বদরুজ্জামান ভূঁইয়া উপস্থিত থাকবেন ।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, সম্মেলনে প্রধান অতিথি ড. আইনুন নিশাত পদ্মা সেতুর নির্মান পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন নিয়ে আলোচনা করবেন। দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলে পদ্মা সেতুর প্রভাব নিয়ে অধ্যাপক ড. সঞ্জয় কে ভরদ্বাজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ছাদেকুল আরেফিন সেশনে উপস্থাপিত প্রবন্ধের উপর বিশ্লেষনধর্মী আলোচনা করবেন।

এছাড়াও বীর মুক্তিযোদ্ধা অজয় দাসগুপ্ত ‘স্বর্নালী সম্ভাবনার যুগে’ শিরোনামে পদ্মা সেতুর বিভিন্ন সম্ভাব্য প্রভাব ও পর্যটন বিশেষজ্ঞ ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বদরুজ্জামান ভূঁইয়া পদ্মা সেতুর কারণে পর্যটন শিল্পের সম্ভাবনা বিষয়টি তুলে ধরবেন। কনফারেন্সে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করবেন কনফারেন্স আয়োজক কমিটির আহবায়ক ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক অসীম কুমার নন্দী। এছাড়া তিনি এদিন সন্ধ্যায় কনফারেন্সের সমাপনি সেশনে কনফারেন্সে উপস্থাপিত ২৩টি পেপারের সারমর্ম তুলে ধরবেন।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক এ কনফারেন্সে দেশ-বিদেশের খ্যাতনামা অধ্যাপক, গবেষক, সাংবাদিক, কলামিস্টসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন।

Related Posts